Diet Plan for Brain: তীক্ষ্ণ স্মৃতিশক্তির জন্য সেরা ডায়েট প্ল্যান, জানিয়েছেন গবেষকরা

0

চিকিৎসা বিজ্ঞানে মস্তিষ্ককে আমাদের শরীরের সেন্ট্রাল প্রসেসিং ইউনিট (CPU) বলা হয়। শরীরের প্রতিটি নড়াচড়া মস্তিষ্ককে থেকে পরিচালিত হয়। তবে বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে মস্তিষ্কের শক্তি ক্ষীণ হতে থাকে। বয়স বাড়ার সাথে সাথে স্মৃতিশক্তির দুর্বলতা, একাগ্রতা ও মনোযোগ হারানো, সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষমতা কমে যায়। তবে এমন নয় যে অল্প বয়সে এমন সমস্যা হতে পারে না। বর্তমান দিনে 40 বছরের কম বয়সী ব্যক্তিদের মধ্যেও একই ধরনের সমস্যা বেশি দেখা গেছে।

স্মৃতিশক্তির ডায়েট প্ল্যান

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মতে, মন সুস্থ রাখতে ডায়েট বড় ভূমিকা পালন করে। আমরা যে ধরনের খাবার খাই তা শরীর ও মন উভয়ের শক্তি নির্ধারণ করে। এই কারণেই শৈশব থেকেই আমাদের সবাইকে স্বাস্থ্যকর খাবারের দিকে মনোযোগ দেওয়া দরকার।

অনেক গবেষণায় বিজ্ঞানীরা দাবি করেছেন যে যদি অল্প বয়স থেকেই স্বাস্থ্যকর খাবারের অভ্যাস করলে তা বয়সের সাথে মস্তিষ্কের ক্ষমতা হ্রাসের ঝুঁকি অনেকাংশে কমিয়ে দেয়। আপনিও যদি সারাজীবন তীক্ষ্ণ মন এবং ভালো স্মৃতিশক্তি চান, তাহলে অবশ্যই ডায়েটে কিছু জিনিস অন্তর্ভুক্ত করুন। জেনে নিন বিজ্ঞানীরা মস্তিষ্ককে সুস্থ রাখতে কী খাওয়ার পরামর্শ দেন।

মাছ খান

তীক্ষ্ণ স্মৃতিশক্তির জন্য জন্য মাছ খান

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মতে, মাছ খেলে মস্তিষ্কের ক্ষমতা ঠিক রাখতে উপকার পাওয়া যায়। মস্তিষ্কের প্রায় 60 শতাংশ চর্বি দিয়ে গঠিত এবং সেই চর্বির অর্ধেক ওমেগা-3 ফ্যাটি অ্যাসিড। ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড হল এক ধরনের প্রোটিনের উৎস যা সুস্থ মস্তিষ্ক রাখার জন্য অপরিহার্য। মাছ খেলে এই ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিডের চাহিদা মেটাতে পারে। খাদ্যতালিকায় মাছ অন্তর্ভুক্ত করা শুধু স্মৃতিশক্তি বাড়ায় না, মন সুস্থ রাখতেও এটি খুবই উপকারী।

নটস এবং সিডস স্মৃতিশক্তির জন্য প্রয়োজন

মনকে সুস্থ ও আলর্ট রাখার জন্য খাদ্যে নাটস এবং সিডস অবশ্যই অন্তর্ভুক্ত করুন। এটি অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং বিটামিন-E এর ভাল উত্স। বিশেষ করে অখরোট  মস্তিষ্ককে সুস্থ্য রাখতে এবং স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি করতে বিশেষ ভাবে সাহায্য করে।

কফি পানের উপকারিতা

কফি পানের অনেক উপকারিতা রয়েছে

আপনি যদি মনে করেন কফি পান করা ক্ষতিকর, তাহলে জেনে নিন এর উপকারিতা সম্পর্কেও। কফিতে 2টি প্রধান উপাদান রয়েছে - ক্যাফেইন এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। কফি অ্যাডেনোসিন নামক রাসায়নিক বার্তাবাহককে ব্লক করে আপনার সতর্কতা বাড়ায়। বর্ধিত অ্যাডেনোসিনের কারণে, আপনি প্রায়শই ঘুমাচ্ছেন। বেশ কিছু গবেষণায় দেখা গেছে যে দিনে ৩-৪ কাপ কফি পান করলে পারকিনসন এবং আলঝেইমারের মতো স্নায়বিক রোগের ঝুঁকি কমে যায়।

ডার্ক চকলেট

ডার্ক চকলেট উপকারিতা

ডার্ক চকলেট খাওয়ার অনেক উপকারিতা রয়েছে যার মধ্যে একটি হল মস্তিষ্কের স্বাস্থ্য ভালো। ডার্ক চকোলেটে শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের পাশাপাশি ফ্ল্যাভোনয়েড (অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট) এর মতো উপকারি যৌগ রয়েছে। চকলেটে ফ্ল্যাভোনয়েডের পরিমাণ শেখার এবং স্মৃতি-সম্পর্কিত দুর্বলতার ঝুঁকি কমানোর পাশাপাশি বিভিন্ন মানসিক রোগের ঝুঁকি কমাতে দেখা গেছে।

দাবিত্যাগ: এই তথ্যের যথার্থতা এবং সত্যতা নিশ্চিত করার জন্য প্রচেষ্টা করা হয়েছে। তবে এটা 'বাংলা ডটের' নৈতিক দায়িত্ব নয়। কোনো প্রতিকার চেষ্টা করার আগে আপনার ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করার জন্য আমরা অনুরোধ করছি। আমাদের উদ্দেশ্য শুধুমাত্র আপনাকে তথ্য প্রদান করা।

Tags

Post a Comment

0 Comments
Post a Comment (0)

#buttons=(Accept !) #days=(20)

Our website uses cookies to enhance your experience. Learn More
Accept !
To Top